মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

জলঢাকার ভাষা ও সংষ্কৃতি

এ উপজেলার জনপ্রিয় খেলাধুলা হচ্ছে ফুটবল, কাবাডি ও  ক্রিকেট ।  উপজেলা পর্যায়ে একটি ষ্টেডিয়াম মাঠ ও ইউনিয়ন পর্যায়ে খেলাধুলার মাঠ থাকলেও মাঠের গুনগত মান ততটা উন্নত নয়। তাছাড়া খেলাধূলার সামগ্রীও অপ্রতুল  ।

এ উপজেলায় দুটি সিনেমা হল ও তিস্তার মেইন ক্যানেল এবং দুন্দিবাড়ীর সুইচগেট বিনোদনের স্থান হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

ভাষা ও সংস্কৃতি. এ জেলার প্রায় ষোল লক্ষ অধিবাসীর সকলে বাংলা ভাষায় কথা বলে তবে সৈয়দপুর উপজেলায় বসবাসরত প্রায় এক লক্ষ বিশ হাজার অবাঙ্গালী যারা মূলত বিহার থেকে এসেছে তারা বাংলার পাশাপাশি উর্দ্দূ ভাষায় নিজেদের মধ্যে কথা বলে থাকে। এছাড়া জনসংখ্যার প্রায় ০'২৫% ভাগ অদিবাসী হরিজন সম্প্রদায়ের লোক বাংলার পাশাপাশি নিজেদের মধ্যে নিজেদের ভাষায় কথা বলে থাকে। বাঙ্গালী জনগোষ্টির গ্রামাঞ্চলে বসবাস কারীরা আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলে থাকে যা ''রংপুরের আঞ্চলিক ভাষা'' নামে খ্যাত। ভাওয়াইয়া গানে এ জেলার আঞ্চলিক ভাষার হৃদযস্পর্শী বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। বিয়ে, বৌভাত,নবান্ন ইত্যাদি পারিবারিক সামাজিক অনুষ্টান বাঙ্গালী সাংস্কৃতির পূর্ণ বহিঃপ্রকাশ ...

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter